Breaking News
Home / ফিটনেস / ঘাড়ের বিশ্রী কালো দাগ দূর করুন এই ৫টি উপায়ে!

ঘাড়ের বিশ্রী কালো দাগ দূর করুন এই ৫টি উপায়ে!

 অনেকের ঘাড়ে কালো দাগ দেখা যায়। বিভিন্ন কারণে ঘাড়ে কালো দাগ দেখা দিতে পারে। এর মধ্যে হল সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি, হরমোনাল ইমব্যালেন্স, পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম, ওবেসিটি, কোন অসুখ ইত্যাদি অন্যতম। অস্বস্তিকর এই দাগ দূর করা সম্ভব ঘরোয় কিছু উপায়ে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক উপায়গুলো।

১। কাঠবাদাম

কাঠাবাদামের ভিটামিন ই এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের পিগমেনশন দূর করতে সাহায্য করে। এক টেবিল চামচ কাঠবাদামের গুঁড়োর সাথে এক টেবিল চামচ মধু এবং দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ঘাড়ে ম্যাসাজ করে লাগান। শুকিয়ে গেলে স্ক্রাব করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২। টমেটো ও মধুর ব্যবহার

টমেটোর রয়েছে ব্লিচিং ইফেক্ট যা ত্বকের কালচে দাগ দূর করে দিতে সক্ষম।মধুর ময়েশচারাইজিং ক্ষমতা ত্বকের ফাটা ভাব দূর করে ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে। টমেটোর রসের সাথে ১ চা চামচ মধু খুব ভালো করে মিশিয়ে মসৃণ মিশ্রন তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণটি ঘাড় ও গলায় লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। এরপর পানি দিয়ে আলতো ঘষে ধুয়ে ফেলুন। কিছুদিনের মধ্যেই ত্বকের কালচে ভাব একেবারেই দূর হয়ে যাবে।

৩। কলা

কলাতে থাকা উপাদান প্রাকৃতিক ব্লিচ হিসেবে কাজ করে যা ত্বক থেকে কালো দাগ দূর করে দেয়। এক টেবিল চামচ কলা ম্যাশ করে এর সাথে এক চা চামচ চিনি এবং এক ফোঁটা অলিভ অয়েল মেশান। এই প্যাক ঘাড়ে ম্যাসাজ করে লাগান। ১০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন।

৪। দুধ এবং লেবুর ব্যবহার

লেবুর ব্লিচিং উপাদান ত্বকের কালচে দাগ দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী। দুধ এবং চিনি দুটোই ত্বকের উজ্জ্বলতা কোমলতা এবং মসৃণতা ফিরিয়ে আনতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ২/৩ টেবিল চামচ দুধে ১ চা চামচ লেবুর রস চিপে ছানা ধরণের তৈরি করে ফেলুন।এরপর এতে দিন ২ টেবিল চামচ চিনি। চিনি আধগলা ধরণের হয়ে এলে গলা ও ঘাড়ের ত্বকে লাগিয়ে নিন।১০ মিনিট পর স্ক্রাবারের মতো আলতো ঘষে ঘষে তুলে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। বেশ দ্রুত ভালো ফলাফল পাবেন।

৫। অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরা জেলে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অন্যান্য উপাদান রয়েছে যা ত্বকে নতুন কোষ সৃষ্টি করতে সাহায্য করে। অ্যালোভেরা পাতা থেকে জেল বের করে নিন, এটি ত্বকে ২০ মিনিট ম্যাসাজ করে লাগান। তারপর পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন। ভাল ফল পেতে সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *